1. news@dailydeshnews.com : Admin2021News :
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:১৮ অপরাহ্ন

সৈকতে সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করা সেই এসআই প্রত্যাহার

কক্সবাজার প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৩০ পঠিত

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে পর্যটকদের ছবি তুলতে গিয়ে ট্যুরিস্ট পুলিশের হাতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় এসআই আব্দুল মান্নানকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। একইসঙ্গে একটি তদন্ত টিম গঠন করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার মো: জিল্লুর রহমান।

বৃহস্পতিবার রাতেই বিষয়টি নিশ্চিত করেন ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: মহিউদ্দিন আহমেদ।

তিনি জানান, ‘সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করে মোবাইল কেড়ে নেয়ার বিষয়টি পুলিশ সুপার মো: জিল্লুর রহমান স্যারকে অবহিত করার পরপরই তাকে প্রত্যাহারের আদেশ দিয়েছেন। একইসঙ্গে একটি তদন্ত টিম গঠন এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশনা দেন। এর আগে বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্টে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে একুশে টেলিভিশনের কক্সবাজার প্রতিনিধি সাংবাদিক আবদুল আজিজকে ধাক্কা দিয়ে মোবাইল কেড়ে নেন ট্যুরিস্ট পুলিশের এসআই আব্দুল মান্নান।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী বৈশাখী টিভির কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি নেছার আহমদ বলেন, বিকালে সমুদ্র সৈকতের লাবণী পয়েন্টে আসেন কয়েকজন বিদেশি পর্যটক। তাঁদের দেখে ছবি তুলে সাংবাদিকদের পজিটিভ নিউজ করার অনুরোধ করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মহিউদ্দিন আহমেদ। তখন সাংবাদিকরা পর্যটকদের ছবি তুলছিলেন। তাদের সঙ্গে ছবি তুলছিলেন একুশে টেলিভিশনের প্রতনিধি সাংবাদিক আবদুল আজিজও।

কিন্তু তাঁকে ছবি তুলতে দেখে দৌড়ে এসে ধাক্কা দেন সৈকতে দায়িত্বরত ট্যুরিস্ট পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল মান্নান। এসময় তাঁকে লাঞ্ছিত করে হাতের মোবাইলটি কেড়ে নেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

ভুক্তভোগী আবদুল আজিজ জানান, ‌‘পর্যটকদের ছবি তোলার সময় আমাকে ধাক্কা দিয়ে মোবাইল ফোন কেড়ে নেন এসআই আব্দুল মান্নান। কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, পর্যটকদের ছবি তোলা যাবে না। এসময় ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের অনুরোধে বিদেশী পর্যটকদের ছবি ওঠানোর বিষয়টি জানালে তিনি কেড়ে নেয়া মোবাইলটি সামান্য দূরে উপস্থিত ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মহিউদ্দিন আহমেদের কাছে জমা দেন। এসময় বিষয়টি ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মহিউদ্দিন আহমেদকে জানালে তিনি তৎক্ষণাৎ মোবাইলটি আমাকে বুঝিয়ে দেন। সেইসঙ্গে এই ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।’

জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘এসআই আব্দুল মান্নানের এমন আচরণ আমরা প্রত্যাশা করিনি। কেন তিনি এমন কাজ করেছেন- তা আমাদের বোধগম্য নয়। এ জন্য আমি লজ্জিত। এ ঘটনায় আমি দুঃখ প্রকাশ করছি।’

মহিউদ্দিন আহমেদ আরও বলেন, ‘সৈকতে আসা সবার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতে ট্যুরিস্ট পুলিশের সব সদস্যকে নির্দেশনা দিয়েছেন জেলা ট্যুরিস্ট পুলিশ সুপার মো. জিল্লুর রহমান স্যার। এরপরও কেন এসআই আব্দুল মান্নান সাংবাদিকের সঙ্গে এমন আচরণ করেছেন, সে বিষয়টি আমি এসপি স্যারকে জানাব। তিনি এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন।’

এদিকে, ট্যুরিস্ট পুলিশ সদর দফতরের গণমাধ্যম শাখার পুলিশ সুপার ইব্রাহিম খলিল বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। মূলত মাস্ক পরে থাকার কারণে চিনতে না পারায় সাংবাদিকের মোবাইলটি কেড়ে নেয়া হয়েছিল। ওখানে বেশ কয়েকজন বিদেশি পর্যটক ছিলেন। মূলত মাস্ক পরে থাকায় চিনতে না পারায় এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। তাৎক্ষণিকভাবে কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন আহমেদের হস্তক্ষেপে বিষয়টি সমাধান করা হয়েছে। পরবর্তীতে আরও সচেতনতার সঙ্গে কাজ করার জন্য জেলা ট্যুরিস্ট পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All Rights Reserved © DAILY DESH NEWS.COM 2020-2021
Theme Customized BY Sky Host BD